‘রাজ্যপালের সঙ্গে অপরাধীদের যোগাযোগ রয়েছে, তদন্ত ঘুরিয়ে দেওয়ার চেষ্টা চলছে’, বিস্ফোরক দাবি কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের

0
73

#কল্যাণ-বন্দ্যোপাধ্যায়: রাজ্যপালের বিরুদ্ধে এবার সরাসরি অপরাধীদের সঙ্গে যোগাযোগ রাখার অভিযোগ তুললেন তৃণমূল সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিন সাংবাদিক সম্মেলনে তিনি প্রশ্ন তোলেন, “পুলিশের সমালোচনা করে অপরাধীদের পক্ষ নিচ্ছেন রাজ্যপাল। দুই অভিযুক্তের পক্ষে কেন কথা বলছেন রাজ্যপাল? তাহলে কী তদন্তে বাধা দেওয়ার চেষ্টা করছেন রাজ্যপাল?”

তিনি বলেন, “ব্যবসায়ী সুদীপ্ত রায়চৌধুরীর বিরুদ্ধে গরুপাচার, মানুষ পাচারের অভিযোগ রয়েছে। ইডির নাম করে ভুয়ো তথ্য পেশ করেছেন সুদীপ্ত রায়চৌধুরী। রোজভ্যালি ছাড়া আরও দুটি কেস যুক্ত হয়েছে।” শ্রীরামপুরের তৃণমূল সাংসদ আরও বলেন, “গোবিন্দ আগরওয়াল ও সুদীপ্ত রায়চৌধুরী দুজনেই প্রতারক। এই দু’জনের বিরুদ্ধে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা পিএমএলএ আইনে তদন্ত করছে, অথচ কলকাতা পুলিশের কাজের সমালোচনা করছেন রাজ্যপাল!”

ঠিক তারপরেই কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায় অভিযোগ তুলে বলেন, “রাজ্যপালের সঙ্গে অপরাধীদের সরাসরি যোগাযোগ রয়েছে। বারবার মুখ্যমন্ত্রীকে টার্গেট করে তদন্ত ঘুরিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করছেন রাজ্যপাল।” তদন্তে বাধা দেওয়ার অভিযোগে রাজ্যপালের বিরুদ্ধেও আইনি ব্যবস্থাও নেওয়া হতে পারে বলেও জানিয়েছেন পেশায় আইনজীবী এই তৃণমূল সাংসদ।

Advertisement

এদিন তিনি বলেছেন, “কেউ তদন্তে বাধা দিলে ১৮৬ ধারায় শাস্তি হওয়া জরুরি। পুলিশ সহ সরকারি কর্মীদের হুমকি দিচ্ছেন, কাজে বাধা দেওয়ার চেষ্টা করছেন রাজ্যপাল।” কল্যাণবাবু সাফ জানিয়েছেন, “জগদীপ ধনখড়ের বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলা চালু করা উচিৎ।” এই পরইপ্রেক্ষিতে রাজ্যাপলকে ভারতীয় আইন পড়ার পরামর্শ দিয়ে তিনি বলেন, “আগে ১৬৩ ধারা ভালো করে পড়ুন রাজ্যপাল।”

Leave a Reply