‘ভ্যাকসিন একার শক্তিতে এই মহামারিকে থামাতে পারবে না’, সতর্কবার্তা বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধানের

0
90

#বিশ্ব-স্বাস্থ্য-সংস্থা: করোনার দাপটে তঠস্থ গোটা বিশ্ব। ইতিমধ্যে সাড়ে পাঁচ কোটি মানুষ করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। ১৩ লক্ষেরও বেশি মারা গিয়েছেন। আবার সম্প্রতি বেশ কয়েকটি সংস্থা দাবি করেছে যে তাদের তৈরি ভ্যাকসিন করোনা মোকাবিলায় ৯০ শতাংশেরও বেশি কার্যকর, যার জেরে আশায় বুক বাঁধছিল সমগ্র বিশ্ববাসী। এমতাবস্থায় সতর্কবার্তা দিলেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান টেড্রোস অ্যাডহ্যানোম গ্যাব্রিয়েসাস। সোমবার টেড্রোস বলেছেন, করোনা ঠকাতে শুধুমাত্র ভ্যকসিনই যথেষ্ট নয়।

টেড্রোস অ্যাডহ্যানোম গ্যাব্রিয়েসাস বলেনছেন, “একটি ভ্যাকসিন আমাদের হাতে থাকা অন্য সরঞ্জামগুলোর পরিপূরক হিসেবে কাজ করবে, তবে সেগুলো প্রতিস্থাপন করবে না। একটি ভ্যাকসিন একার শক্তিতে এই মহামারিকে থামাতে পারবে না।” বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সাফ বক্তব্য, ভ্যাকসিন এলেও সারা বিশ্বে নিয়মিত পরীক্ষা, কন্ট্র্যাক্ট ট্রেসিং, মাস্ক-স্যানিটাইজার ব্যবহার এবং সামাজিক দূরত্ববিধি মেনে চলা অত্যাবশ্যক।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান এদিন আরও বলেছেন, “ভাইরাসটির সংক্রমণ ছড়ানোর অনেক উপায় থাকছে। তাই নজরদারি চালিয়ে যাওয়া দরকার।” একইসঙ্গে তিনি এও জানিয়েছেন, “প্রাথমিকভাবে এই ভ্যাকসিনের সরবরাহকে সীমাবদ্ধ করা হবে। অগ্রাধিকার দেওয়া হবে স্বাস্থ্যকর্মী, বয়স্ক ব্যক্তি এবং ঝুঁকিপূর্ণ জনগোষ্ঠীকে। আশা করছি এতে করে মৃত্যুর সংখ্যা হ্রাস পাবে এবং স্বাস্থ্যসেবা ব্যবস্থা পরিস্থিতি মোকাবিলায় মানিয়ে নিতে পারবে।”

Advertisement

প্রসঙ্গত, কিছুদিন আগেই মার্কিন ওষুধ প্রস্তুতকারক সংস্থা ফাইজার দাবি করেছে যে তাদের তৈরি কোভিড টিকা ৯০ শতাংশেরও বেশি কার্যকর। ঠিক তারপরেই গত বুধবার রাশিয়ার ডাইরেক্ট ইনভেস্টমেন্ট ফান্ড দাবি করে যে স্পুটনিক ভি করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে ৯২ শতাংশ কার্যকর। তারপরে মাত্র আট দিনের ব্যবধানে এক কদম এগিয়ে সোমবার মডার্না দাবি করেছে যে তাদের তৈরি টিকা করোনার বিরুদ্ধে ৯৪.৫% কার্যকারী। কিন্তু এতগুলি ভ্যাকসিন-ক্যান্ডিডেটের এহেন সফল ইঙ্গিতপূর্ণ দাবির পরেও চিন্তামুক্ত হতে পারছে না বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।

Leave a Reply