আজ মুর্শিদাবাদ সফরে গিয়ে সস্ত্রীক কিরীটেশ্বরী মন্দিরে পুজো দিলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়

0
108

#জগদীপ ধনকড়:  বুধবার মুর্শিদাবাদের সফরে গেলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়। যদিও তাঁর এই সফরে কথা তিনি গতকাল রাতে নিজেই টুইট করে জানান। এদিন দুপুরবেলা হেলিকপ্টারে করে কলকাতা থেকে বহরমপুরের স্টেডিয়ামে যান তিনি। সেখান থেকে রাস্তায় নবগ্রামে অবস্থিত দেবীর ৫১ পিঠের কিরীটেশ্বরী মন্দিরে গিয়েছিলেন ধনকড়। সেখানে পুজো দেওয়ার পাশাপাশি, সেই মন্দিরের নানান মাহাত্ম্য কথা শোনেন রাজ্যপাল। সূত্রের খবর অনুযায়ী, এদিন নবগ্রামে অবস্থিত দেবীর ৫১ পিঠের কিরীটেশ্বরী মন্দিরে হাজির হয়ে মন্দিরে নিজে হাতে আরতী করেন তিনি। এই বিষয়ে মন্দিরের এক সেবায়েত দিলিপ ভট্টাচার্য জানান, “রাজ্যপাল মনোযোগ সহকারে মন্দিরের প্রাচীন ইতিহাস ও সম্প্রীতির কথা মনোযোগ সহকারে শোনেন এবং নানান বিষয় খতিয়ে জানার জন্য আগ্রহ প্রকাশ করেন। এরপর সেখান থেকে বেরিয়ে হাজার দুয়ারী প্যালেস ও ইমামবাড়া চত্বরে যান তিনি।”

দর্শনের পাশাপাশি এদিন এই তিনি বহরমপুরে এক সাংবাদিক বৈঠক করেন। সেখানে তিনি নির্বাচন প্রসঙ্গ তুলে বলেন, “রাজ্য প্রশাসনে রাজনৈতিক পক্ষপাত লক্ষ্য করা যাচ্ছে। এটি অত্যন্ত মারাত্মক প্রবণতা। রাজ্যে এমন এক পরিস্থিতি চলছে যেখানে আপনি যদি সরকারপক্ষের সমর্থক হন তাহলে ঠিক আছে। আর তা না হলে আপনার হাতে হাতকড়া পড়বে। প্রশাসন এটা করতে পারে না। এটি আইনের শাসনের পরিপন্থী।” এর সাথে, নদিয়ার রঘুনাথপুরে শহিদ জওয়ান সুবোধ ঘোষের শেষকৃত্যে বিজেপি সাংসদকে হেনস্থা করার অভিযোগেও তিনি মুখ খোলেন। তাঁর কথায়, “তিরিশ বছর আগে সাংসদ বিষয়ক মন্ত্রী ছিলাম। আমি জানি একজন সাংসদের সম্মান কতটা। ক্যাবিনেট সেক্রেটারিরা একজন সাংসদের সামনে দাঁডিয়ে তাঁকে সম্মান জানান। আসনে এটা কোনও ব্যক্তিকে সম্মান করা নয়, তিনি লাখো মানুষের প্রতিনিধি। ওইসব মানুষদেরই সম্মান করা হয়। আর প্রশাসন এখানে একজন সাংসদের সঙ্গে এরকম ব্যবহার করছে।”

Advertisement

Leave a Reply