এবার কোচবিহারে তৃণমূল-কংগ্রেসের অন্দরে ফাইলের ইঙ্গিত দিলেন জগদীশ বর্মা বসুনিয়া

0
140

যতই নির্বাচনের দিন এগিয়ে আসছে ততই শসক দলের অন্তর্দ্বন্দ প্রকাশ্যে আসছে। এবার উত্তর বাংলার কোচবিহারেও সেই হাওয়া দেখা গেল। এদিন সিতাই কেন্দ্রের বিধায়ক জগদীশ বর্মা বসুনিয়ার গলায় তৃণমূল-কংগ্রেসের অন্দরে ফের ভাঙনের ইঙ্গিত মিলেছে।দলের কার্যপ্রণালী নিয়ে এদিন ক্ষোভ প্রকাশ জগদীশ বর্মা বসুনিয়া বলেন, “মিহির গোস্বামী দল ছাড়লে তার প্রভাব পড়বে তৃণমূলে।” পাশাপাশি নিজের সম্পর্কেও স্পষ্ট জানালেন, “সময় কথা বলবে।”।

উল্লেখ্য বিগত কয়েকমাস ধরেই তৃণমূলের বেশ কয়েকজন বিধায়ক দলের কার্যকলাপ নিয়ে অভিযোগ আনছে। তবে বঙ্গ রাজনীতিতে সবচেয়ে চর্চিত ব্যাক্তি হলেন শুভেন্দু অধিকারী। একের পর এক সভায় নাম না করেই শাসক দলের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিচ্ছেন তিনি। এবার কড়া ভাষায় জগদীশ বর্মা বসুনি সতর্ক করলেন পিকের টিমকে। সব মিলিয়ে জোর চাঞ্চল্য কোচবিহার জেলা তৃণমূলের অন্দরে।

প্রসঙ্গত এদিন বিকেলের দিকে এক সভায় তৃণমূল নেতাদের তীব্র আক্রমণ করেন জগদীশ বর্মা বসুনিয়া।
মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন জেলা সভাপতি পার্থপ্রতিম রায়, উত্তরবঙ্গ উন্নয়নমন্ত্রী রবীন্দ্রনাথ ঘোষ, আদিবাসী উন্নয়নমন্ত্রী বিনয় বর্মন, উদয়ন গুহ সহ একাধিক বিধায়ক। প্রকাশ্যেই জেলা নেতৃত্বকে তুলোধোনা করেন সিতাই বিধায়ক। নেতাদের দ্বন্দ্ব নিয়ে তীব্র সমালোচনা করেন। বলেন, “জেলার নেতাদের অনেকেই বিজেপির সঙ্গে মিলে কাজ করেছেন। আজ নিজেদের বড় ভাবছেন। বেইমান, বিশ্বাসঘাতক। ২০১৯-এ যাঁরা বিজেপিকে সাহায্য করেছেন, তাঁরাই আজকের নেতা। কে কত বড় নেতা, ২০২১-এ বোঝা যাবে।”

Advertisement

Leave a Reply