রাজ্য পুলিশে তিনটি নতুন ব্যাটেলিয়ন, শূন্য পদে হবে শিক্ষক নিয়োগ, জানালেন মুখ্যমন্ত্রী

0
118

সামনেই একুশের ভোট। তাই তার আগে মানুষকে ফের তৃণমূল মুখী করতে একাধিক বড়সড় পদক্ষেপ নিচ্ছে রাজ্য সরকার। বাংলায় কর্মসংস্থান নিয়ে অভিযোগ বহুদিনের। তাই আবার সেই নিয়েই ঘুরে দাঁড়াতে মরিয়া তৃণমূল। কর্মসংস্থানের পথ আরও প্রশস্ত করতে উদ্যোগী রাজ্য সরকার।

আজ বুধবার নবান্নে মন্ত্রিসভার বৈঠকের পর মুখ্যমন্ত্রী সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে জানালেন দুটি ক্ষেত্রে ফের নিয়োগের সুখবর। একটি হলো রাজ্যে নিরাপত্তা আরও মজবুত করতে রাজ্য পুলিশে আরও তিনটি নতুন ব্যাটেলিয়ন (Battalion) তৈরি করা হচ্ছে। দ্বিতীয়টি হলো, কোভিড (COVID-19) পরবর্তী পরিস্থিতিতে শূন্য পদে নিয়োগ করা হবে শিক্ষকদেরও। তাঁর এই ঘোষণা শুনে স্বভাবতই খুশি রাজ্যবাসী।

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। তা শেষে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে তিনি জানান, ”কোভিড পরিস্থিতির উন্নতি হলে শূন্য পদে শিক্ষক নিয়োগ শুরু হবে। ডিসেম্বর থেকেই ১৬ হাজার পদে নিয়োগ করা হবে টেট উত্তীর্ণদের। যাবতীয় নিয়মকানুন স্থির করে পরে জানাবে শিক্ষাদপ্তর।”

Advertisement

প্রসঙ্গত বিগত বেশ কয়েক বছর ধরেই থমকে ছিল শিক্ষক নিয়োগ। তাই কোভিড পরবর্তী সময়ে রাজ্যকে ফের পুরোনো ছন্দে ফেরাতে একাধিক পদক্ষেপ নিচ্ছে রাজ্য সরকার। আগের মতো সমস্ত কাজ জোরকদমে শুরু করাই এখন লক্ষ্য। চার রূপরেখা ঠিক করতে এদিন নবান্নে মন্ত্রিসভার বৈঠক ডেকেছিলেন এই মুহূর্তে উত্তীর্ণ টেট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা রাজ্যে ২০ হাজার। তাঁরাই নিয়োগে অগ্রাধিকার পাবেন। আগামী বছর টেট হবে অফলাইনে, ইতিমধ্যেই আড়াই লক্ষ আবেদনপত্র জমা পড়েছে বলে জানান মুখ্যমন্ত্রী।

অন্যদিকে পাহাড়ের নিরাপত্তায় গোর্খা ব্যাটেলিয়ন, জঙ্গলমহলের জন্য একটি ব্যাটেলিয়ন এবং কোচবিহারের নারায়ণী ব্যাটেলিয়ন তৈরির কথা তিনি জানিয়েছেন। এই তিন ব্যাটেলিয়নে অন্তত ৩০০০ নিয়োগ হবে বলে ঘোষণা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। তবে কীভাবে, কবে থেকে নিয়োগ হবে, কারা সুযোগ পাবেন, সেসব রূপরেখা স্থির করার দায়িত্ব তিনি রাজ্য পুলিশের শীর্ষকর্তাদের উপরই ছেড়েছেন।

Leave a Reply