‘আত্মবিশ্বাস কমে গিয়েছে বলেই রবীন্দ্র ও সুভাষ সরোবরে প্রচুর পুলিশ মোতায়েন করেছে রাজ্য সরকার’, ফের রাজ্য সরকারকে কটাক্ষ দিলীপ ঘোষের

0
58

#দিলীপ ঘোষ:  আদালতের নির্দেশেই রবীন্দ্র সরোবর এবং সুভাষ সরোবরে বন্ধ ছটপুজো। এবার এই বিষয়কে কেন্দ্র করেই জল্পনা শুরু হল রাজনৈতিক মহলে। সবরকম ঝুট-ঝামেলা এড়ানোর জন্য সারাদিন বন্ধ রাখা হয় শহরের দুই সরোবরের দরজা। প্রচুর পরিমাণ পুলিশও মোতায়েন করা হয়। তবে এই বিষয়কে কেন্দ্র করে রাজ্য সরকারকে কটাক্ষ করলেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ।

এ বিষয়ে বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেন, ‘আত্মবিশ্বাস কমে গিয়েছে বলেই রবীন্দ্র ও সুভাষ সরোবরের সামনে এত বেশি পরিমাণে পুলিশ মোতায়েন করেছে রাজ্য সরকার।’ বিবেকানন্দ পার্ক এলাকায় ছটপুজো উপলক্ষে মাইক লাগিয়েছিল বিজেপি। তবে তা খুলে দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ করা হয় তৃণমূলের বিরুদ্ধে। দিলীপ ঘোষ বলেন, ‘বিয়ে, অন্নপ্রাশন সবকিছুতে রাজনীতি হয় বাংলায়। একটা দল সবকিছু নিয়ন্ত্রণ করতে চায় বাংলায়। এভাবে কাউকে আটকানো যায় না।’

শেষ বিহার নির্বাচন, এবার সকলের নজর বাংলায়। চলতি বছর ঘুরলেই বিধানসভা নির্বাচন বাংলায়। জোর কদমে প্রস্তুতি চলছে রাজ্যে। আর ঠিক নির্বাচনের আগে রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা নিয়ে প্রশ্ন তুলছে গেরুয়া শিবির। সম্প্রতি পরোক্ষে রাজ্যে ৩৫৬ ধারা জারির কথাতেই প্রশ্ন করেছেন আসানসোলের বিজেপি সাংসদ বাবুল সুপ্রিয়। শনিবার বিবেকানন্দ পার্কে ছটপুজোর অনুষ্ঠানে বিজেপি রাজ্য সভাপতি বলেন, ‘আমি কিংবা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রাষ্ট্রপতি শাসন চাইলে হবে না। সাধারণ মানুষ ঠিক করবেন কী হবে আর না হবে। রাজ্যপাল আছেন। তিনি কেন্দ্রকে জানাবেন।’ সম্প্রতি মালদহের সুজাপুরের প্লাস্টিক কারখানায় বিস্ফোরণের ঘটনায় প্রাণহানি হয় ৬ জনের। এবার এই ঘটনাকে হাতিয়ার করেছে শুরু হয়েছে রাজনৈতিক জল্পনা। রাজ্যের বিরুদ্ধে দিলীপ ঘোষ বলেন,’বোমা ফাটছে। মানুষ মারা যাচ্ছে। তাতে মানুষের মনে ভয় তৈরি হচ্ছে।’

Advertisement

Leave a Reply