ভুল প্রতিবেদনের জেরে ফ্রান্স পাকিস্তান সংঘাত, বিপাকে পড়ে বিতর্কিত ট্যুইট মুছলেন পাক মন্ত্রী

0
229

 

#ইম্যানুয়েল_মাক্রো :  ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইম্যানুয়েল মাক্রোকে ‘নাৎসি’ বলে ডেকে ফের ট্যুইট মুছে ফেললেন পাক মন্ত্রী। সম্প্রতি এই ট্যুইটকেই কেন্দ্র করে বির্তকের মুখে পাক মন্ত্রী।

কী ভাবে এই বির্তকের উৎপত্তি ?
একটি অনলাইন পাক প্রতিবেদন সূত্রে দাবি করা হয়েছিল, নতুন আইন পাশ করে ফ্রান্সের মুসলিম শিশুদের একটি সংখ্যা পরিচিতির নিয়ম আবশ্যিক করতে চলেছে মাক্রো প্রশাসন।

Advertisement

আর এই প্রতিবেদন দেখেই গত শনিবার পাকিস্তানের মানবাধিকার মন্ত্রী শিরীন মাজারি ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইম্যানুয়েল মাক্রোকে নাৎসিদের সঙ্গে তুলনা করে ট্যুইট করেছেন, “ইহুদিদের প্রতি নাৎসিরা যে আচরণ করেছিল মুসলিমদের প্রতি তেমনই আচরণ করছেন মাক্রো। শুধুমাত্র মুসলিম শিশুদের জন্য পরিচিতিমূলক সংখ্যা দেওয়া হবে (অন্য শিশুদের জন্য নয়), ঠিক যে ভাবে ইহুদিদের পরিচিতির জন্য পোশাকের উপরে হলুদ তারা পরতে বাধ্য করেছিল নাৎসি সরকার।”

পরে অবশ্য এই প্রতিবেদন সংশোধন করে লেখা হয়, “শুধু মুসলিম নয়, সব শিশুদের ক্ষেত্রেই এই নিয়ম চালু করছে ফরাসি সরকার।”

আর এরপরেই বির্তকের ঝড় নামে পাক মন্ত্রী ট্যুইটে। পরে অবশ্য প্রতিবেদন সংশোধনের সাথে সাথেই পাক মন্ত্রীও তাঁর ট্যুইট মুছে ফেলে ফের মন্তব্য করেন।
তিনি লেখেন, “যে প্রতিবেদনের প্রেক্ষিতে তিনি মন্তব্য করেছিলেন, তা সংশোধন করা হয়েছে বলেই পুরনো ট্যুইটটি তিনি মুছে দিয়েছেন। পাকিস্তানে নিয়োজিত ফরাসি রাষ্ট্রদূতের থেকে বার্তা পেয়েই নিজের ভুল শুধরে নিয়েছেন।”

Leave a Reply