নির্ধারিত সময়ের অন্তত এক মাস পরে হবে ন্যাশনাল এলিজিবিলিটি কাম এন্ট্রান্স টেস্ট অর্থাৎ NEET

0
220

#NEET:   করোনার সংক্রমণের পরিস্থিতিতে লকডাউনের জেরে মার্চ মাস থেকে শুরু করে দীর্ঘ কয়েক মাস ধরে ব্যাহত জনজীবন। লকডাউনের জেরে কাজ এবং বাসস্থান হারিয়ে অকুলপাথারে পড়েছিলেন অনেকে। স্কুল-কলেজ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ছিল। আর এই কারণেই নির্ধারিত সময়ের অন্তত এক মাস পরে স্নাতকোত্তর মেডিসিন ও সার্জারি পড়ার প্রবেশিকা পরীক্ষা ন্যাশনাল এলিজিবিলিটি কাম এন্ট্রান্স টেস্ট অর্থাৎ NEET অনুষ্ঠিত হবে। সম্ভবত ফেব্রুয়ারি মাসে অনুষ্ঠিত হবে এই পরীক্ষা।

করোনার জেরে মেডিক্যাল কলেজ গুলিতে ইন্টার্নশিপে হাতে কলমে কোনও ক্লাস নেওয়া যায়নি। তবে MBBS ডিগ্রি পেতে হলে এবং স্নাতকোত্তর পড়ার জন্য ইন্টার্নশিপ করা জরুরি।  এই কারণেই স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রককে মেডিক্যাল কলজগুলি খোলার প্রয়োজনীয়তা সম্পর্কে লিখেছে দেশের মেডিক্যাল শিক্ষার নিয়ন্ত্রক ন্যাশনাল মেডিক্যাল কমিশন। বিশেষত স্নাতক স্তরের মেডিক্যাল কোর্সের শিক্ষার্থীদের মূল্যবান সময় যাতে নষ্ট না হয় এবং আসন্ন শিক্ষাবর্ষে যাতে দেরি না হয় সেজন্যই ১ ডিসেম্বর বা তার আগেই মেডিক্যাল কলেজ গুলি খোলার কথা বলে NMC।

প্রতি বছর প্রায় ১৬০,০০০ এমবিবিএস ও বিডিএস পরীক্ষার্থী স্নাতকোত্তর পড়ার জন্য NEET পরীক্ষা দেয়। এর মধ্যে এমবিবিএস প্রার্থীর সংখ্যা ৪০,০০০। মেডিক্যাল কলেজ দেরিতে খুললে ভবিষ্যতে প্রায় ৮০,০০০ চিকিৎসককে হারাতে হবে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন এক NMC আধিকারিক।

Advertisement

ডিসেম্বরে মেডিক্যাল কলেজগুলি খোলার পাশাপাশি নতুন MBBS ব্যাচের ক্লাস ২০২১ সালের ফেব্রয়ারি মাস থেকে চালু করার পাশাপাশি মার্চ-এপ্রিল মাসে PG NEET পরীক্ষা নিয়ে ১ জুলাই থেকে PG কোর্স শুরু করতে চায় কেন্দ্র।
এ বিষয়ে সমস্ত মেডিক্যাল কলেজে সরকারি নির্দেশিকা পাঠানো হয়েছে। এর মধ্যেই কলেজ খোলার জন্য প্রয়োজনীয় বন্দোবস্ত করতে শুরু করেছে কর্তৃপক্ষ।

Leave a Reply