মুম্বাই হামলার বর্ষপূর্তিতে বড় নাশকতার ছক কষেছিল জঙ্গিরা! নাগরোটা এনকাউন্টার নিয়ে রিভিউ বৈঠক করলেন মোদী

0
52

#ভারতীয়-নিরাপত্তাবাহিনী: নাগরোটা এনকাউন্টার নিয়ে রিভিউ বৈঠক করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। উপস্থিত ছিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ, জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত ডোভাল সহ গোয়েন্দা বিভাগের শীর্ষ কর্তারা। গোয়েন্দা বিভাগের শীর্ষস্থানীয় কর্তারা জানিয়েছেন যে গতকাল জম্মুর নাগরোটায় যে চার জঙ্গিরা নিহত হয়েছে, তাদের মূলত মুম্বই হানার বর্ষপূর্তিতে একই ধাঁচের বড়সড় নাশকতার ছক কষেছিল।

বৈঠকের পর দেশীয় নিরাপত্তাবাহিনীর প্রশংসা করে টুইট করেন প্রধানমন্ত্রী। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী লেখেন, “পাকিস্তানের জইশের চার সন্ত্রাবাদীর মৃত্যু এবং তাদের সঙ্গে থাকা বিপুল অস্ত্রশস্ত্র থেকে এটা স্পষ্ট যে বড়রকম ক্ষয়ক্ষতি করার চেষ্টা করছিল তারা। নিরাপত্তাবাহিনী ফের চরম সাহসিকতা ও পেশাদারিত্বের পরিচয় দিয়েছে। তাদের তৎপরতার জন্যেই জম্মু-কাশ্মীরে তৃণমূল স্তরে গণতান্ত্রিক কার্যকলাপ বিঘ্ন করার পরিকল্পনা পরাজিত হয়েছে।”

প্রসঙ্গত, গতকাল সকালে নাগরোটার কাছে একটি টোল প্লাজায় রুটিন তল্লাশি চালাচ্ছিল পুলিশ। গোপন সূত্রে খবর পেয়ে ওই টোল প্লাজায় চলে আসেন সেনা এবং সিআরপিএফের জওয়ানরা। গাড়ি তল্লাশি শুরু হয়, হঠাৎই একটি ট্রাক থেকে জওয়ানদের লক্ষ্য করে গুলি ছোঁড়া হতে থাকে।পাল্টা জবাব দেয় সেনাও। প্রায় ৩ ঘণ্টার বেশি সময় ধরে চলে গুলিযুদ্ধ, খতম হয় ৪ জইশ জঙ্গি। উদ্ধার হয় ১১টি একে ৪৭ রাইফেল, ২৯ হ্যান্ড গ্রেনেড, ৩টি পিস্তল এবং প্রচুর কার্তুজ।

Advertisement

উল্লেখ্য, স্থানীয় ডিডিসি নির্বাচনের আগে যে জঙ্গিরা বড় আক্রমণ করতে পারে, সেরকম খবর আগে থাকতেই পেয়েছিলেন নিরাপত্তাবাহিনী। সেইমতোই ট্রাক তল্লাশি হচ্ছিল। কিন্তু এবার তদন্ত নেমে জানা গেল ২০০৮ সালের ২৬শে নভেম্বর মুম্বই হামলা যেমন হয়েছিল, সেই একই দিনেই বড়সড় নাশকতার পরিকল্পনা ছিল এই জঙ্গিদের। ফলে এই জঙ্গি নিকেশ জম্মু-কাশ্মীরের পুলিশ এবং সিআরপিএফের জন্য একটি অত্যন্ত বড় সাফল্য।

Leave a Reply