শুভেন্দু আসছে বিজেপিতেই, আত্মবিশ্বাসী বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্ব

0
91

শুভেন্দুকে তৃণমূলের অন্দরমহলে যে চাপা উত্তেজনা শুরু হয়েছে। ভোটের দিন যত এগিয়ে আসছে ততই ফাটল বাড়ছে তৃণমূলে ও শুভেন্দুর মধ্যে। আর সেই মাঝের দুরত্বে নিজেদের ঘড়া পূরণ করে চলেছে বিজেপি। উল্লেখ্য গত বৃহস্পতিবার মেদিনীপুরের রামনগর এলাকায় কিছু ‘স্বস্তিদায়ক’ কথা পরিবহন মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারীর মুখে শোনা গেলে জল্পনা জিইয়ে রাখতে চাইছে বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্বরা।

প্রসঙ্গত শনিবার রামনগরে দলীয় সভায় দাঁড়িয়ে বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতা কৈলাস বিজয়বর্গীয় দাবি করলেন— শুভেন্দুর দল ছাড়া শুধু সময়ের অপেক্ষা! মজার ব্যাপার হলো এই রামনগরেই দাঁড়িয়ে দু’দিন আগে শুভেন্দু অধিকারি জানিয়েছিলেন, তিনি তৃণমূলেই আছেন। তিনি বলেছিলেন, ‘আমায় মুখ্যমন্ত্রী তাড়াননি, আমিও ছাড়িনি।’ এমনকি সেই কথায় শিলমোহরও দিয়েছিলেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়।

এদিন বিজেপির দুই সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায় এবং অর্জুন সিংহও আলাদা ভাবে বলেছেন, বিজেপিতে শুভেন্দু স্বাগত। তাঁর আর তৃণমূলে থাকা উচিত নয়।

Advertisement

রামনগর রেলস্টেশন সংলগ্ন মাঠে দলীয় সভায় বিজেপির কেন্দ্রীয় সম্পাদক তথা রাজ্যের দায়িত্বপ্রাপ্ত পর্যবেক্ষক কৈলাস এদিন বলেন, ‘‘দিদি এখন আত্মবিশ্বাস হারিয়ে ফেলেছেন। দল পরিচালনার দায়িত্ব বহিরাগত ভুয়ো সংস্থাকে দিয়েছেন। তৃণমূল এখন দিদির পার্টি নয়। তৃণমূল মুকুলদার নয়। তৃণমূল শুভেন্দু অধিকারীর নয়। শুভেন্দু এখন দলকে বিদায় জানাতে প্রস্তুত।’’

বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ অবশ্য এদিন বলেন, ‘‘শুভেন্দু অধিকারী কী করবেন তা আমার জানা নেই।’’ রামনগরে বিজেপি সভায় যোগ দিতে এসে অর্থবহ একটি মন্তব্য করেছেন তৃণমূল থেকে আসা সব্যসাচী দত্তও। তিনি বলেন, ‘‘নন্দীগ্রাম আন্দোলন হয়েছিল বলে আমরা বিধায়ক হয়েছিলাম।’’

শুভেন্দু কি বিজেপিতে যাবেন? বিজেপি সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায় সাংবাদিকদের এই প্রশ্নের উত্তরে বলেছেন, ‘‘শুভেন্দুর জন্য বিজেপির দরজা খোলা। তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিলে ওঁকে স্বাগত।’’

Leave a Reply