ইরানে আটকে থাকা ৯ জনকে ফিরিয়ে আনার জন্য আবেদন করা হলো প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির কাছে

0
77

#ইরান:  গত ৯ মাস ধরে ইরানে আটকে থাকা ৯জন যুবক এবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে চিঠি লিখলেন তাদের ফিরিয়ে আনার ব্যবস্থা করার জন্য। উলেক্ষ যে রোজগারের জন্য মধ্যপ্রচ্যে গেছিলো তাঁরা। কিন্তু গত ৯ মাস ধরে তাঁরা ইরানে আটকে পড়েছেন। এমনকি তাদের কাছে কোন রকম বেতন বা খাওয়ার টাকাও নেই। খবর অনুযায়ী, যে সংস্থায় তাঁরা কাজ করতো, সেই সংস্থা এদের পাসপোর্ট কেড়ে নেওয়ায় আবার ভারতে ফিরতে পারছে না তাঁরা। তবে কোনোক্রমে গোটা বিষয়টি তাঁরা এদেশের জাতীয় মানবপাচাররোধী কমিটিকে জানাতে সক্ষম হয় হোয়াটসঅ্যাপ করে।

খবর পাওয়া মাত্রই কমিটির চেয়ারম্যান জিন্নার আলি দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে চিঠি দিলেন এই ৯জন যুবককে উদ্ধারের জন্য। উলেক্ষ যে সেখান আটকে পড়া ৯জনের মধ্যে ৭জনেরই বাড়ি হুগলি জেলায়। বাকি একজনের বাড়ি উত্তর২৪ পরগনা জেলায়। হুগলি জেলার যে ৭জন সেখানে রয়েছে তাঁদের মধ্যে ৪জনের বাড়ি পান্ডুয়াতে। এরা হল জিয়াউল মন্ডল, নাসিরুদ্দিন, গোলাম মোর্তাজা ও মিরাজুল হক। ৩জন রয়েছেন পোলবা থেকে। এরা হলেন সেখ বাদশা, সামসুদ্দিন ও আখতার আলি। উত্তর ২৪ পরগনার বাদুড়িয়া থেকে রয়েছেন মহসিন সরদার।

সূত্রের খবর অনুযায়ী সমগ্র বিষয়টি এই ৯জন যুবকের মধ্যে সেখ মহম্মদ জুলফিকার হোয়াটসঅ্যাপ করে বিষয়টি জানায় জাতীয় মানবপাচাররোধী কমিটিকে। জুলফিকারের বাড়ি পূর্ব বর্ধমান জেলার দক্ষিন সদর মহকুমার জামালপুর থানার জাঁকুলি গ্রামে। এই ৯জন যুবক ইরানের কিউসাম শহরের আলরুইস জুয়েলারিস কেসম নামে এক সংস্থার কাজে যোগদান করার জন্য গিয়েছিলেন। কাজে যোগদান করার সময় এই সংস্থাটি তাঁদের কাছ থেকে পাসপোর্টও কেড়ে নেয়। ও তাদের কাজও দেওয়া হয় না। এই ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির তরফ থেকে কোনো প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

Advertisement

Leave a Reply