বিজেপির নবান্ন অভিযানের দিন জলকামানে করোনার থেকেও ক্ষতিকারক রাসায়নিক মেশানো ছিল, বললেন তেজস্বী সূর্য

0
95

বিজেপির নবান্ন অভিযানের দিন জলকামানে করোনার থেকেও ক্ষতিকারক রাসায়নিক মিশিয়ে কর্মীদের উপর প্রয়োগ করা হয়েছিল। এদিন রাজ্য বিজেপির তরফে লোকসভার স্পিকারের কাছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকারের বিরুদ্ধে এমনই বিস্ফোরক অভিযোগ আনলেন সর্বভারতীয় বিজেপি যুব মোর্চার সভাপতি তেজস্বী সূর্য।

তিনি বলেন, ”আমি জানি না সেদিন যে জলকামানে পুলিস যে জল ব্যবহার করেছিল তাতে করোনার জীবাণু ছিল কি না! তবে তাতে করোনার থেকেও ক্ষতিকারক কোনও রাসায়নিক মেশানো ছিল।”

শুধু তাই নয়, এদিন রাজ্য পুলিশের বিরুদ্ধেও অভিযোগ তিনি। তাঁর অভিযোগ যে অভিযানের দিন পুলিস উঁচু জায়গা থেকে বোমা ছুঁড়েছিল। তেজস্বী সূর্য এদিন বলেছেন, ”আমি, জ্যোতির্ময় সিং মাহাতো ও নিশীথ প্রামাণিক সেদিন হাওড়ার থানায় আড়াই ঘণ্টা ধরে চেষ্টা করেও এফআইএর করাতে পারিনি। আমাদের ধাক্কা দিয়ে বের করে দেওয়া হয়নি। পুলিস কোনও কারণ ছাড়াই এফআইআর নিতে অস্বীকার করে। সেদিন থানায় লকেট চট্টোপাধ্যায় পর্যন্ত প্রহৃত হন। লোকসভার সাংসদদের খুনের চেষ্টা করা হয়।”

Advertisement

তিনি জানিয়েছেন, লোকসভার স্পিকার এই ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট কমিটির মাধ্যমে তদন্ত হবে বলে আশ্বাস দিয়েছেন। ডেপুটি কমিশনার অফ পুলিস সুধীর কুমার নীলকন্টম, জোড়াসাঁকো থানার ওসি কুণাল আগরওয়াল, হাওড়ার পুলিস কমিশনারেট, কলকাতার পুলিস কমিশনার অনুজ শর্মার বিরুদ্ধে অভিযোগের আঙুল তুলেছে বিজেপি।

প্রসঙ্গত গত মাসের শুরুর দিকে হাজারো কর্মী নিয়ে বিজেপির যুব মোর্চা নবান্ন অভিযানের ডাক দেয়। সেই মিছিল আটকাতে রাজ্য পুলিশ জলকামানের সাহায্য নেয়। তাতে মেশানো ছিল রঙিন জল। মূলত বিক্ষোভকারীদের পরে চিহ্নিত করতেই দোলের রঙ ব্যবহার করা হয়েছিল জানান মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু বিজেপির অভিযোগ ওই জলে মেশানো ছি‌ল ক্ষতিকারক রাসায়নকি। এমনকি জলে করোনা ভাইরাস মেশানো ছিল বলেও অভিযোগ আনে পদ্ম শিবির।

বিজেপির নবান্ন অভিযানের পর সাংবাদিক বৈঠকে যুব মোর্চার সর্বভারতীয় সভাপতি তেজস্বী সূর্য, ওইদিনটিকে বাংলার রাজনৈতিক ইতিহাসে ‘কালো দিন’ বলে আখ্যা দেন। তিনি আরও বলেছিলেন যে গণতন্ত্র ও সাংবিধানকে হত্যা করেছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার।

সেইসঙ্গে বিজেপি যুব মোর্চার রাজ্য সভাপতি সৌমিত্র খাঁ আবার দাবি করেছিলেন, নবান্ন অভিযানের দিন পুলিস যে জল কামানে যে জল ব্যবহার করেছিল তাতে করোনাভাইরাস মেশানো রাসায়নিক ছিল। যদিও বিজেপি শিবিরের পক্ষ থেকে আগেই পুলিসের বিরুদ্ধে রাসায়নিক মিশ্রিত জল ছোঁড়ার অভিযোগ ছিল। এবার বিজেপির পক্ষ থেকে দাবি করা হল, তাদের ৫০০ জন কর্মী সেদিন পুলিসি বর্বতার শিকার হয়ে হাসপাতাল ভর্তি হয়েছিলেন।

 

Leave a Reply