মান্থলির পুনর্নবীকরণ শুরু হতেই ‘লিঙ্ক ফেলিওর’ সার্ভার! ভোগান্তির মুখে যাত্রীরা

0
80

#রেল_মান্থলি:  প্রায় আট মাস বন্ধ থাকার পর অবশেষে আগামী বুধবার থেকে পুনরায় চালু হতে চলেছে রেল পরিষেবা। করোনা মহামারী সংক্রমণ ঠেকাতে অত্যাবশ্যকীয় পদক্ষেপ হিসেবে গত মার্চ মাসের মাঝামাঝি সময়ে ট্রেন চলাচল বন্ধ করতে বাধ্য হয় সরকার। বর্তমানে করোনা সংক্রমনের হার কিছুটা নিয়ন্ত্রণে আসায় এবং নাগরিকদের সুবিধার কথা মাথায় রেখে ট্রেন চালানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য ও কেন্দ্রীয় সরকার। তবে কিভাবে সুষ্ঠুভাবে এবং সংক্রমণের হার নিয়ন্ত্রণে রেখে ট্রেন চালানো যায় সেই নিয়ে দফায় দফায় বৈঠক করছেন রেল কর্তারা।

ইতিমধ্যেই প্রকাশিত হয়েছে একাধিক গাইডলাইন। সেইমতো গতকালই পূর্ব রেলের তরফে জানানো হয়েছিল, লকডাউনের আগে যারা নিজেদের মান্থলি করিয়েছিলেন তাদের মান্থলির বাকি মেয়াদের দিনগুলো পুনরায় ব্যবহার করা যাবে। তার ফলে অনেক যাত্রী স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলেন। কারন অনেকেই এরকম মার্চ মাসে মান্থলি কেটে মাত্র এক-দু’দিন ট্রেনে যাতায়াত করতে পেরেছিলেন। তাই মান্থলির বাকি দিনগুলি নষ্ট হবে এই ভেবে অনেকেই আফসোস করেছিলেন। সেই কারণেই রেলের তরফেই ঘোষণার পর যাত্রীরা স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলেন।

কিন্তু বাদ সাধল রেলের সার্ভার। প্রত্যাশামতোই এদিন সকাল থেকেই টিকিট কাউন্টারগুলিতে যাত্রীদের ভিড় লেগে যায় মান্থলির পুনর্নবীকরণ করার জন্য। কিন্তু প্রক্রিয়া শুরু হওয়ার কিছুক্ষণ পর থেকেই ‘লিঙ্ক ফেলিওর’ দেখাতে শুরু করে রেলের সার্ভার। তারপর দীর্ঘক্ষন প্রতীক্ষা করার পরেও মেলেনি কোনো সমাধান সূত্র। ফলে অনেক যাত্রীকে মান্থলি পুনর্নবীকরণ বিনাই ফিরে আসতে হয়। তবে রেলের তরফে জানানো হয়েছে প্রযুক্তিগত ত্রুটির কারণে এই সমস্যা। খুব দ্রুতই এই সমস্যা সমাধান হয়ে যাবে বলে জানান রেলের উচ্চপদস্থ আধিকারিকরা।

Advertisement

Leave a Reply