উৎসবের মরসুমে উদ্বেগ বাড়াচ্ছে করোনা সংক্রমণ, আহমেদাবাদে টানা ৫৭ ঘন্টার সম্পূর্ণ কারফিউ জারি করলো গুজরাট সরকার

0
105

#গুজরাট: দেশে করোনা সংক্রমণ বেশ খানিকটা নিয়ন্ত্রণে এসেছে। তবুও উৎসবের মরসুমে অনেক রাজ্যেই উদ্বেগ বাড়াচ্ছে সংক্রমণ। একদিকে দিল্লি, অন্যদিকে গুজরাটের বৃহত্তম শহর আহমেদাবাদে সংক্রমণের বৃদ্ধি নিয়ে দুশ্চিন্তায় পড়েছে প্রশাসন। এমতাবস্থায় করোনা সংক্রমণে লাগাম টানতে আহমেদাবাদে ৫৭ ঘণ্টার সম্পূর্ণ কারফিউয়ের ডাক দিল প্রশাসন। আজ রাত ৯টা থেকে শুরু করে সোমবার ভোর ৬’টা পর্যন্ত এই কারফিউ জারি থাকবে।

বৃহস্পতিবার অনেক রাতে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় গুজরাট সরকারের তরফে, টুইটারে একথা ঘোষণা করেছেন অতিরিক্ত মুখ্য সচিব (বন ও পরিবেশ) রাজীবকুমার গুপ্তা। গুপ্তা এদিন জানিয়েছেন, কারফিউ চলাকালীন দুধ আর ওষুধের দোকান ছাড়া আর সব কিছুই বন্ধ থাকবে। একইসঙ্গে তিনি এও জানিয়েছেন, সোমবার ভোরে এই ‘সম্পূর্ণ কারফিউ’ উঠে গেলেও জারি থাকবে নাইট কারফিউ।

উল্লেখ্য, নভেম্বর মাসের শুরু থেকেই আহমেদাবাদে ব্যাপক হারে বেড়েছে করোনার প্রকোপ। গুজরাটের স্বাস্থ্য দপ্তরের দেওয়া পরিসংখ্যান অনুযায়ী, বৃহস্পতিবার ২৩০ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। বর্তমানে শহরে অ্যাকটিভ করোনা রোগীর সংখ্যা ২,৮৪৫। প্রশাসন তাই সংক্রমণ রুখতে কি কি পন্থা অবলম্বন করা যায়, তা নিয়ে ভাবনাচিন্তা শুরু করে দিয়েছেন।

Advertisement

এই প্রসঙ্গে গুজরাটের অতিরিক্ত মুখ্যসচিব রাজীবকুমার গুপ্তা জানাচ্ছেন, যেভাবে উৎসবের মরশুমে দোকান, বাজার ও অন্যত্র বিপুল সংখ্যায় মানুষকে ভিড় জমাতে দেখা যাচ্ছে তা উদ্বেগ বাড়াচ্ছে। এমতাবস্থায় সংক্রমণকে রুখতেই এহেন কঠোর কারফিউয়ের সিদ্ধান্ত নিতে হচ্ছে প্রশাসনকে। পাশাপাশি আহমেদাবাদের কোভিড হাসপাতালগুলিতে বেডের সংখ্যাও বাড়ানো হচ্ছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

Leave a Reply