শুভেন্দু অধিকারীর ইস্তফা দেওয়াকে কেন্দ্র করে তৃণমূলকে কটাক্ষ করলেন কৈলাস বিজয়বর্গীয়

0
211

#শুভেন্দু_অধিকারী- আজি মন্ত্রিত্ব পদ থেকে ইস্তফা দিয়েছেন শুভেন্দু অধিকারী। যা নিয়ে রীতিমতো তোলপাড় রাজনৈতিক মহল। এই খবর পাওয়ার পর এমনকি কালীঘাটের জরুরিকালীন বৈঠক ডাকলেন স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এবং শুভেন্দু অধিকারীর এই মন্ত্রিত্ব থেকে ইস্তফাকে হাতিয়ার করে আরো একবার তৃণমূল কংগ্রেসকে আক্রমণ করলেন পশ্চিমবঙ্গের বিজেপির পর্যবেক্ষক কৈলাস বিজয়বর্গীয়। শুক্রবার এই খবর পাওয়ার পরেই তিনি সংবাদমাধ্যমের সামনে বলেন, “শুভেন্দুর ইস্তফায় স্পষ্ট, তৃণমূলও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকারের প্রতি ক্ষুব্ধ। ”

এখানেই থেমে থাকেননি তিনি। তিনি আরো জানান, “শুভেন্দু অধিকারী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে অনেকবার জানিয়েছেন যে ওনার ভাইপো কয়লা পাচার, গরুপাচার ও দুর্নীর্তিতে যুক্ত। শুভেন্দুর অধিকারীর পদত্যাগে সারা রাজ্যের মানুষ বুঝে গিয়েছে, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকারের প্রতি শুধু রাজ্যের মানুষ নন তৃণমূলও ক্ষুব্ধ। এতদিন শুধু সাধারণ মানুষ তৃণমূল সরকারের প্রতি ক্ষুব্ধ ছিল। এখন স্পষ্ট হল যে তৃণমূলও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকারের প্রতি ক্ষুব্ধ। ”

আজ শুভেন্দু অধিকারীর ইস্তফা দেওয়ার পরে, বিজেপিতে যোগদান নিয়ে কৈলাসবাবুকে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, “আমাদের সঙ্গে ওঁর এখনো কোনও কথা হয়নি। তবে উনি যদি প্রস্তাব দেন আমরা বিবেচনা করে দেখব। ” প্রসঙ্গত উল্লেখ্য যে আজ দুপুরে নিজের মন্ত্রিত্ব পদে থেকে ইস্তফা দিয়েছেন স্বয়ং শুভেন্দু অধিকারী। এমনকি গতকাল বৃহস্পতিবার HRBC-র চেয়ারম্যান পদ থেকেও পদত্যাগ করেছিলেন তিনি। মন্ত্রিত্বের পাশাপাশি হলদিয়া উন্নয়ন পর্যদের চেয়ারম্যান পদ থেকেও ইস্তফা দেন তিনি। তবে বিধায়কপদ ও তৃণমূলের প্রাথমিক সদস্যপদ থেকে এখনো ইস্তফা দেননি তিনি। কাজেই এখনো স্পষ্ট নয় শুভেন্দু অধিকারীর আসল উদ্দেশ্য কি।

Advertisement

Leave a Reply