‘অধীরবাবু ঘর সামলাতে পারছেন না,’ কটাক্ষ ফিরহাদ হাকিমের

0
70

এবার প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরীর মন্তব্যের কড়া প্রত্যুত্তর দিলেন ফিরহাদ হাকিম। রীতিমতো কটাক্ষের সুরে অধীরকে এক হাত নেন। পাশাপাশি বিজেপিকেও তীব্র আক্রমণ করেন। যা নিয়ে বঙ্গ রাজনীতি একুশের বিধানসভা নির্বাচনের আগে ধুন্ধুমার কাণ্ড। কোনো রাজনৈতিক দলই এক অপরকে ছেড়ে কথা বলছে না।

সম্প্রতি প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরী তৃণমূলকে চাঁচাছোলা আক্রমণ করে মন্তব্য করেন, “তৃণমূলের বিরুদ্ধে যাঁরা বিদ্রোহী হচ্ছেন তাঁদের সাহস ও সততাকে স্যালুট।” তিনি যোগ করেন, “সেই দলের দুর্নীতের সঙ্গে সহমত হতে পারছেন না বলেই নেতারা বিদ্রোহী হচ্ছেন।” পাশপাশি তৃণমূলের সেই সকল বিদ্রোহী নেতাদেরকে কংগ্রেসে স্বাগত জানান। তিনি বলেন,”যদি তাঁরা সম্মানের সঙ্গে রাজনীতি করতে চান, তাহলে তাঁদের জন্য কংগ্রেসের দরজা খোলা।”

এবার পাল্টা আক্রমণ করেন রাজ্যের পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। তিনি বলেন, “অধীরবাবু ঘর সামলাতে পারছেন না।” পাশপাশি বিহারে মহাজোটের ভরাডুবির জন্য কংগ্রেসকেই দায়ী করেন তিনি। কারণ বিহারের নির্বাচনে কংগ্রেস ৭০টি আসনে লড়ে পেয়েছে মাত্র ১৯টি আসন। সেখানে বামপন্থী দল নামের প্রতি সুবিচার করেছে। ফিরহাদ হাকিম বলেন, “ভুল হয়েছে তেজস্বী যাদবের, কংগ্রেসকে বেশি আসন দেওয়ায়।”

Advertisement

এপ্রসঙ্গে ফিরহাদ হাকিম বলেন, কংগ্রেস আস্তে আস্তে বিলুপ্ত হয়ে যাচ্ছে।” তিনি আরও বলেন, “আগে তৃণমূলের ভাঙন না দেখে, নিজেদের ভাঙনটা দেখুন। কংগ্রেস কেন এতগুলো আসন নষ্ট করল।” ফিরহাদ বলেন, “বিহারে বিজেপির আসার কথা নয়। যদি আরও বেশি আসনে তেজস্বী লড়াই করত তাহলে মহাজোট সরকার গঠন করতে পারত। বিশ্বাস করে তিনি কংগ্রেসকে আসন ছেড়ে দিয়েছিলেন, যাদের কিনা কোনও অস্তিত্ব নেই।”

রাজ্যে বিজেপির অবস্থা নিয়ে কটাক্ষ করেন ফিরহাদ হাকিম। তিনি বলেন, বিজেপির অবস্থা ছাগলের তৃতীয় সন্তানের মতো। দিল্লিতে, বিহারে জিতে বাংলায় লাফাচ্ছে তারা। তিনি বলেন, ছাগলের দুটো বাচ্চা দুধ খায়, তার তৃতীয় বাচ্চা ছপছপ করে লাফায়। প্রসঙ্গত এদিন নন্দীগ্রামে মিছিল করে বিজেপি। যা নিয়েই ফিরহাদ হাকিমকে প্রশ্ন করা হয়েছিল।

Leave a Reply