ভারতে করোনা ভ্যাকসিন সক্রিয় রাখার কোল্ড স্টোরেজের অমিল ভাবাচ্ছে বিশেষজ্ঞদের

0
55

#করোনাভ্যাকসিন: করোনা অতিমারীকে রুখতে ভ্যাকসিন যে একমাত্র রাস্তা সেটা গোটা বিশ্ব এতদিনে বুঝে নিয়েছে। সেটা তৈরি করতে বিভিন্ন সংস্থা জোরকদমে কাজ চালাচ্ছে। তারা একেবারে শেষ পর্যায়ে রয়েছেন বলে অনেকেরই দাবি। ভারতের বাজারে ভ্যাকসিন পৌঁছে গেলেও চিন্তামুক্ত হওয়ার অবকাশ নেই। এদেশে কোল্ড স্টোরেজের অভাব ভাবাচ্ছে বিশেষজ্ঞদের। মাইনাস ৭০ থেকে ৮০ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেড প্রয়োজন কোভিডের ভ্যাকসিনকে সক্রিয় রাখার জন্য। যা ভারতে কার্যত অমিল।

ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অফ মেডিক্যাল রিসার্চের প্রাক্তন ডিরেক্টর জেনারেল এন কে গঙ্গোপাধ্যায় চিন্তার সুরে জানিয়েছেন, ‘মাইনাস ৭০ থেকে ৮০ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেডের ফ্রিজার আমেরিকা বা ইউরোপের একাধিক হাসপাতালেও নেই। তাই শুধু ভ্যাকসিন পৌঁছনোই নয়, সেটা সংরক্ষণের জন্য গোটা ভারতে প্রবল কার্যকরী কোল্ড স্টোরেজ বানানোটাও একান্ত প্রয়োজন।’

আগামী বছরের জুলাই মাসের মধ্যে দেশের ২৫ কোটি জনগণকে করোনা ভ্যাকসিন দেওয়ার লক্ষ্যমাত্রা নিয়েছে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক। ভ্যাকসিনেশনের ব্যাপারে ভারতের আগের ইতিহাসও উজ্জ্বল। কিন্তু করোনার ভ্যাকসিনকে সক্রিয় রাখার জন্য প্রয়োজনীয় কোল্ড স্টোরেজ নিয়ে সকলেই চিন্তায় রয়েছেন। শুধু কোল্ড স্টোরেজই নয়, সমগ্র ভারতে ভ্যাকসিন পৌঁছনো থেকে প্রত্যন্ত অঞ্চলে বিদ্যুৎ ঘাটতির সমস্যার মোকাবিলার বিষয়ও ভাবতে হচ্ছে।

Advertisement

সম্প্রতি ফাইজারের ভ্যাকসিন ৯০ শতাংশ সফল বলে দাবি করা হয়েছে এবং সেটাকে সক্রিয় রাখতে মাইনাস ৭০ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেড প্রয়োজন হয়। মর্ডেনা ভ্যাকসিন যেটি ডিসেম্বরের শেষে ভারতে আসার কথা, তাকে সক্রিয় রাখতে মাইনাস ২০ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেড তাপমাত্রা প্রয়োজন। ভারতে সেটিও সঠিক মাত্রায় অমিল। ভারতে সাধারণত মাইনাস ২ থেকে ৮ ডিগ্রি পর্যন্ত তাপমাত্রায় ভ্যাকসিন রাখার ব্যবস্থা রয়েছে বলে জানিয়েছেন আইমিএমআরের এপিডেমোলজি ও কমিউনিকেবল ডিজিসেজ-র প্রাক্তন প্রধান ললিত কান্ত।

বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন যে ভ্যাকসিন তৈরির সঙ্গেই তাই অতি সক্রিয় কোল্ড স্টোরেজ বানানোটাও অত্যন্ত জরুরী। সঙ্গে আবার ভ্যাকসিনের কার্যকারিতা নিয়েও তাদের চিন্তা রয়েছে। কারণ ভ্যাকসিনের কার্যকারিতার প্রয়োগ আপাতত তুলনামূলক সুস্থ ও তরুণ স্বেচ্ছাসেবকদের শরীরেই হচ্ছে। সবার শরীরেই সেটা সমান কার্যকরী হবে কি না সেই ব্যাপারে কোনও নিশ্চয়তা এখনও অবধি নেই।

Leave a Reply