ট্রেন চলাচল শুরু হলেও রাস্তায় বাস-মিনিবাস কম থাকায় ভোগান্তির আশঙ্কা

0
177

লোকাল ট্রেন বুধবার থেকে চালু হয়ে যাচ্ছে। কিন্তু বুধবার থেকে বেসরকারি বাস এবং মিনিবাস পুরোদমে রাস্তায় নামছে না। রাজ্যের বাস, মিনিবাস, অটো, ট্যাক্সি সংগঠনগুলি নিজেদের কিছু সমস্যার কারণে ১০০ শতাংশ পরিষেবা দিতে পারছে না। রাজ্য পরিবহণ দফতরকে বিষয়টি তারা জানিয়ে রেখেছে। সুতরাং আশঙ্কা করা হচ্ছে যে লোকাল ট্রেনে ভিড় বাড়তে পারে।

জানা গিয়েছে যে রাজ্যে মোট ৩৬,০০০ বেসরকারি বাস চলে। তার মধ্যে ৬,০০০টি কলকাতায় চলে। ৩০,০০০টি চলে জেলায়। ৮৫০ টি মিনিবাস চলে কলকাতায় এবং ২,৫০০টি জেলায়। ১২,০০০টি ট্যাক্সি চলে কলকাতায়। শহরের মোট ৩০,০০০ টি অটো চলে ১২৫ টি রুটে। এগুলি সব রাস্তায় না নামলে সাধারণ মানুষকে লোকাল ট্রেন থেকে নেমে নাকাল হতে হবে। বুধবার থেকে কলকাতায় মোট ৩,৫০০-৪,০০০টি বেসরকারি বাস চলবে। ৫০০০টি জেলায় চলবে। জেলায় মিনিবাস চলবে ৫০০ এবং কলকাতায় ৩৫০। কলকাতার রাস্তায় ৫,০০০ টি ট্যাক্সি চলবে। অটো চলবে শহরে ১৫,০০০টি এবং জেলায় ১,২০০টি। যা বিপাকে ফেলতে পারে রেলযাত্রীদের।

বেসরকারি পরিবহণ সংগঠনগুলির সূত্রে জানা গিয়েছে যে ২০১৯ সালের লোকসভা এবং বিধানসভা উপনির্বাচন বাবদ টাকা বাস মিনিবাস মালিকেরা এখনও পায়নি। রাজ্য সরকারের টাকা মিটিয়ে দেওয়ার কথা। টাকা না পাওয়াটাই পরিষেবায় ঢিলেমির কারণ। এর ফলে বিপদে পড়বে মানুষ এবং তখন সরকারের টনক নড়বে।

Advertisement

২৫ শতাংশ বাস–মিনিবাসের বিমার মেয়াদ উত্তীর্ণ হয়ে গিয়েছে বলে সংগঠনের পক্ষ থেকে জানানো হচ্ছে। তা নবীকরণ করা যায়নি লকডাউনে। এখন রাস্তায় সেই বাস নিয়ে বেরোলে পুলিশ মোটা টাকা জরিমানা করবে। রাজ্য পরিবহণ দফতর আরটিও’র মাধ্যমে পুলিশকে আপাতত কেস দেওয়া থেকে বিরত রাখলে এবং বিমা নবীকরণের সময়সীমা আগামী বছরের ৩১ মার্চ পর্যন্ত বাড়িয়ে দিলে তবে রাস্তায় বেশি বাস নামানো সম্ভব হবে। আগামিকাল তা হলে কি হবে? রাত পোহালেই উত্তর মিলবে।

Leave a Reply