পাহাড়ে রাজনৈতিকভাবে প্রত্যাবর্তনের তোড়জোড় শুরু গুরুংয়ের! শীঘ্রই সভা করতে শিলিগুড়ি পাড়ি দেবেন বিমল

0
48

#বিমল-গুরুং: সাড়ে তিন বছর গা ঢাকা দিয়ে থাকার পর গত ২১শে অক্টোবর কলকাতায় আত্মপ্রকাশ করেন বিমল গুরুং। প্রত্যাবর্তন ঘিরে শুরু হয় নানাবিধ বিতর্ক। গুরুং ফিরেই বলেন যে বিজেপি প্রতিশ্রুতি রাখেনি এবং বিধানসভা নির্বাচনে তৃণমূলকে সমর্থণ করতে চান। শুধু তাই নয়, তৃতীয়বার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কেই ক্ষমতায় দেখতে চান বলেও জানান তিনি। এখন জানা যাচ্ছে, এবার পাহাড়ে রাজনৈতিকভাবে প্রত্যাবর্তনের তোড়জোড় শুরু করেছেন গুরুং। খুব শীঘ্রই জনসভা করতে শিলিগুড়ি পাড়ি দেবেন তিনি, এমনটাই জানাচ্ছেন গুরুং ঘনিষ্ঠরা।

সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয় বিশাল ছেত্রী বলেছেন, “খুব শীঘ্রই পাহাড়ে ফিরতে চলেছেন বিমল গুরুং। তৃণমূলের সমর্থনে পাহাড়ে রাজনৈতিক কর্মকাণ্ড চালাবেন তাঁরা। তৃণমূলের সঙ্গে এখন আমাদের কোনও বিরোধ নেই। বিমল গুরুংয়ের নাম শুনেই বিনয় তামাং, অনিত থাপারা ভয় পেয়ে গিয়েছেন। তাই অশান্তি ছড়াতে পারে বলে গুজব ছড়াচ্ছেন।” তিনি আরও বলেন, “গুরুং শীঘ্রই কলকাতা থেকে শিলিগুড়ি আসবেন এবং পদযাত্রা করবেন। শিলিগুড়ির বাঘাযতীন পার্কে হাজার হাজার পাহাড়ের মানুষ সেদিন উপস্থিত থাকবেন। তরাই এবং ডুয়ার্স তাঁকে স্বাগত জানাবে।”

গুরুংয়ের অনুগামীদের বক্তব্য, তাঁর পাহাড়ে নিজের বাড়িতে ফেরা তখনই সম্ভব যখন রাজ্য সরকার তাঁর উপর থেকে মামলা প্রত্যাহার করবে। উল্লেখ্য, বিমল গুরুংয়ের নামে ইউএপিএ ধারায় মামলা রয়েছে। এমতাবস্থায় পাহাড়ের হারানো রাজনৈতিক প্রভাব ফিরে পেতে মরিয়া হয়ে উঠেছেন বিমল গুরুং। তবে
পাহাড়ে গুরুং ফিরলে বিনয়-অনীতের সঙ্গে তাঁর সংঘাত যে অবশ্যম্ভাবী, তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না।

Advertisement

 

Leave a Reply