বিহারের পর এবার টার্গেট পশ্চিমবঙ্গের সংখ্যালঘুরা ! একুশের বিধানসভা নির্বাচনে প্রার্থী দেবে আসাদউদ্দিন ওয়াইসির দল

0
203

#বিধানসভা-নির্বাচন: বিহারে ২৪টি আসনে ভোটে লড়ে ৫টি আসন জিতেছে আসাদউদ্দিন ওয়াইসির দল অল ইন্ডিয়া মজলিস-এ ইত্তেহাদুল মুসলিমিন’ (এআইএমআইএম)। এবার পশ্চিমবঙ্গেও জমি মজবুত করতে চাইছে ওয়াইসির দল। আসন্ন একুশের বিধানসভা নির্বাচনে পশ্চিমবঙ্গে পার্থী দেবে আসাদউদ্দিন ওয়াইসির দল। শুধু তাই নয়, ২০২২-এর উত্তরপ্রদেশ বিধানসভা নির্বাচনেও লড়বে এআইএমআইএম।

উল্লেখ্য, বিহারে প্রতিনিয়ত নাগরিকত্ব বিল অথবা সিএএ বিরোধী প্রচার চালিয়েছে ওয়াসির দল। বিহারের সীমাঞ্চলের ভোটবাক্সে জিতে নিয়েছে একাধিক আসন। মূলত, সংখ্যালঘু ভোট ব্যাঙ্ক বলেই ওয়াইসির দলকে চেনে রাজনৈতিক মহল। তবে ওয়াইসির বক্তব্য যে তাঁর দল হিন্দু-বিরোধিতা বা কোনোরকম সাম্প্রদায়িক উস্কানিতে বিশ্বাস করে না। ঠিক সেই কারণেই বিহারের দলিত, হিন্দুরাও তাঁর দলকে ভোট দিয়েছে।

ওয়াইসির দল পশ্চিমবঙ্গে প্রার্থী দিলে এ রাজ্যের নির্বাচনী সমীকরণ ঠিক কেমন হবে ?

Advertisement

মূলত রাজ্যের সংখ্যালঘুদেরই টার্গেট করবে ওয়াইসির দল। ফলে ক্ষমতায় আসার পর থেকে এযাবৎ যে সংখ্যালঘুদের একচেটিয়া ভোট পেয়েছে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বাধীন তৃণমূল কংগ্রেস, তা যথেষ্ট কুপ্রভাবিত হতে পারে। ওয়াইসির দল বাংলায় প্রার্থী দিলেই তৃণমূলের সংখ্যালঘু ভোটব্যাঙ্কে থাবা বসবে।

সূত্রর খবর, ইতিমধ্যেই পশ্চিমবঙ্গের মালদা, মুর্শিদাবাদ,উত্তরবঙ্গের সীমান্তবর্তী জেলা ছাড়াও দুই ২৪ পরগণায় নির্বাচনী খতিয়ানে নেমে পড়েছে ওয়াইসির দল। অন্যদিকে, রাজনীতিবিদরা মনে করছেন যে বাংলায় জোরদার বিজেপি-বিরোধী হাওয়া তুলবে ওয়াইসির দল। এআইএমআইএম মুসলিম ভোট নিশানা করলে আখেরে লাভ হবে বিজেপিরই।

উল্লেখ্য, একজন অভিজ্ঞ রাজনীতিবিদ হিসেবে আগভাগেই সমস্তটা আঁচ করে ফেলেছেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ইতিমধ্যেই ওয়াইসির দলের নাম না করেই পরোক্ষ ভাবে তাঁর দলকে টার্গেট করা শুরু করেছে তৃণমূল কংগ্রেস। রাজ্যের বিভিন্ন অঞ্চলে এআইএমআইএমকে ‘বিজেপির বি-টিম’ নামে আখ্যায়িত করে বলে প্রচার চালাচ্ছে তৃণমূল শিবির।

 

Leave a Reply