‘দলের পুরনো কর্মীরা মর্যাদা পাননি’, এবার শাসকদলের ওপর ক্ষোভ প্রকাশ করলেন পশ্চিম মেদিনীপুরের তৃণমূলের সম্পাদক অলোক আচার্য

0
137

#পশ্চিম মেদিনীপুর: শেষ বিহার নির্বাচন, এবার সকলের নজর বাংলায়।চলতি বছর ঘুরলেই বিধানসভা নির্বাচন বাংলায়। এর মধ্যেই ফের বিস্ফোরক মন্তব্য করলেন ডেবরার তৃণমূল নেতা৷ পশ্চিম মেদিনীপুরের তৃণমূলের সম্পাদক অলোক আচার্য বলেন, ‘পরিস্থিতি এমন হয়েছে যে জনপ্রতিনিধিদের দেখলে মানুষ থুতু ফেলেন৷’ শুভেন্দু অধিকারীর প্রসঙ্গ তিনি বলেন, ‘শুভেন্দু দলের বড় সম্পদ এবং শুভেন্দুকে পেলে শক্তি বাড়বে বিজেপির৷’ এর পাশাপাশি ডেবরা পঞ্চায়েত সমিতির পূর্ত কর্মাধ্যক্ষর বলেন, ‘দলের পুরনো কর্মীরা মর্যাদা পাননি৷’ অলোক আচার্যের এমন কথাতে স্পষ্ট ধরা পড়েছে দলের প্রতি তার ক্ষোভ৷

 

সম্প্রতি শুভেন্দু অধিকারীর মন্ত্রী পদ থেকে ইস্তফা দেওয়ার পর থেকেই বেসুরো গাইতে শুরু করেছেন দলের বহু বর্ষীয়ান নেতা। অলোক আচার্য সেই তালিকায় নতুন। দলের পরিকাঠামোগত বদল না নিয়ে এলে আগামী বিধানসভা নির্বাচনে দল যে বড় বিপর্যয়ের মুখে পড়তে পারে তারই আভাস পাওয়া গিয়েছে।

Advertisement

 

এবার বেসুরো পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা তৃণমূলের সম্পাদক তথা ডেবরা পঞ্চায়েত সমিতির পূর্ত কর্মাধ্যক্ষ অলোক আচার্য। একদিকে তিনি দলের পুরনো নেতাদের মর্যাদা নিয়ে প্রশ্ন তুললেন এবং অপরদিকে পঞ্চায়েতস্তর থেকে বিধায়কের মতো জনপ্রতিধিদের ইমেজ নিয়ে প্রশ্ন তুললেন। তবে এখানেই শেষ নয়, দলের কোনও বৈঠকে যোগ দেবেন না বলে স্পষ্ট জানিয়ে দিলেন তিনি। রবিবার সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে তিনি দাবি করেন, ‘এখন রাস্তা দিয়ে জনপ্রতিনিধিরা হেঁটে গেলে মানুষ থুতু ফেলে।’ তিনি আরও বলেন, ‘অল্পদিন রাজনীতি করেই বিধায়ক হয়েছেন সেলিমা খাতুন। সেখানে দলের পুরকর্মীরা মর্যাদা পায়নি। এভাবে চলতে থাকলে ২০২১ এর বিধানসভা নির্বাচনে ডেবরায় তৃণমূলের হার অবশ্যম্ভাবী।’ শুভেন্দু অধিকারী প্রসঙ্গে বিস্ফোরক দাবি করেন অলোক আচার্য। শুভেন্দুর সঙ্গে দলের সম্পর্ক বড় ক্ষতি করতে পারে বলেও আশঙ্কা প্রকাশ করেন তিনি।  তার দাবি,’শুভেন্দু অধিকারী দলের বড় সম্পদ। দলত্যাগ করে শুভেন্দু বিজেপিতে গেলেন রাজনৈতিকভাবে শক্তিশালী হবে বিজেপি, পিছিয়ে পড়বে তৃণমূল।’

Leave a Reply