ছ’জনের পর ফের করোনা আক্রান্ত পাক-ক্রিকেটার, সিরিজ খেলায় অনিশ্চয়তায় পাক শিবির

0
149

#কোভিড-১৯:  প্রথম দিনেই ছজন আক্রান্ত হওয়ার পর শেষ ওয়ার্নিং দেওয়া হয়েছিল নিউজিল্যান্ড সরকারের তরফে। করোনা সংক্রমণের বিধিনিষেধ মানায় আর কোনও ভুলচুক হলেই সরাসরি দেশে ফিরে যেতে হবে পাকিস্তানের ক্রিকেটারদের বলেই পরিষ্কার জানিয়ে দেওয়া হয়েছিল। তবে তারপরেও করোনার থাবা থেকে মুক্তি পেল না পাক শিবির। ফের করোনা আক্রান্ত হলেন এক ক্রিকেটার। যার জেরে পাকিস্তান এবং নিউজিল্যান্ডের মধ্যেকার সিরিজ ঘিরে অনিশ্চয়তা আরও বাড়ল।

 

গত ২৪ নভেম্বর নিউজিল্যান্ডে নামেন পাকিস্তান টেস্ট, টি-২০ দল এবং সাপোর্ট স্টাফ মিলিয়ে মোট ৫৩ জন সদস্য। সেদিন এই ৫৩ জনেরই করোনা পরীক্ষা করা হয়েছিল। বৃহস্পতিবার রিপোর্ট আসতেই কঠোর সিদ্ধান্ত নিয়েছিল নিউজিল্যান্ড প্রশাসন। কারণ ওই রিপোর্টে পাক দলের ৬ জন ক্রিকেটারের রিপোর্ট পজিটিভ আসে। রিপোর্ট প্রকাশ্যে আসার পর পাকিস্তান টিম ম্যানেজমেন্টের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিয়েছে নিউজিল্যান্ড প্রশাসন। নিউজিল্যান্ডের বিমান ধরার আগে লাহোরে করোনা পরীক্ষা করা হয়েছিল এই ক্রিকেটারদের। তখন দলের কোনও সদস্যের করোনা সম্পর্কে কোনও তথ্য দেওয়া হয়নি। তবে ক্রাইস্টচার্চে নামতেই ৬ সদস্যের রিপোর্ট পজিটিভ আসে। করোনা বিধি মানতে আর কোনও ভুলচুক হলে পুরো দলকে ফিরে যেতে হবে বলেই সতর্কবার্তা দেয় ক্ষুব্ধ কিউয়ি প্রশাসন।

Advertisement

 

তবে সেই ঘটনার দুদিনের মধ্যেই ফের এক ক্রিকেটার আক্রান্ত হওয়ায় সিরিজ নিয়ে অনিশ্চয়তা আরও খানিকটা বেড়ে গেল। নিউজিল্যান্ডের স্বাস্থ্যমন্ত্রক শনিবার এক বিবৃতি প্রকাশ করে জানিয়েছে, ‘পাকিস্তান ক্রিকেট দলের আরও এক সদস্যের করোনা রিপোর্ট আজ পজিটিভ এসেছে। বাদবাকিদের রিপোর্ট নেগেটিভ।’ আগামী সোমবার ফের এই ৫৩ সদস্যের দলের করোনা পরীক্ষা করা হবে। নিউজিল্যান্ডের স্বাস্থ্যমন্ত্রক সাফ জানিয়ে দিয়েছে, প্রোটকল না মানার বিষয়েই বেশি গুরত্ব দিয়ে দেখছে সেদেশের সরকার। তারা সাফ জানিয়ে দিয়েছে, এই পরিস্থিতিতে কোনওভাবেই পাক দলকে অনুশীলনের অনুমতি দেওয়া সম্ভব নয়। এরপর আর কোনও ক্রিকেটার আক্রান্ত হলে, সিরিজ বাতিল করা ছাড়া উপায় থাকবে না পাকিস্তানের।

Leave a Reply