ইথিওপিয়ার গৃহযুদ্ধে সরাসরি ‘মদত’ দেওয়ার অভিযোগ উঠেল আধানম ঘেব্রিয়েসুসর বিরুদ্ধে

0
143

এবার ইথিওপিয়ার গৃহযুদ্ধে মদত দেওয়ার অভিযোগ উঠল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান টেডরোজ আধানম ঘেব্রিয়েসুসর বিরুদ্ধে। ইথিওপিয়ার সেনাপ্রধান জেনারেল বিরহানু জুলা সাফ জানিয়েছেন সম্প্রতি সেখানকার তাইগ্রে বিদ্রোহী নিজের ক্ষমতা প্রয়োগ করছে আধানম। শুধু তাই নয় দিচ্ছেন কূটনৈতিক মদতও। যে কারণে সেনাপ্রধান বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধানকে কাঠঘোরায় তুলে ‘অপরাধী’ বলেন উল্লেখ্য করেছেন।

প্রসঙ্গত সম্প্রতি ইথিওপিয়ার উত্তরাঞ্চলের তাইগ্রেতে সে দেশের এক আঞ্চলিক বাহিনী, তাইগ্রে পিপলস লিবারেশন ফ্রন্টের সঙ্গে দেশটির কেন্দ্রীয় সরকারের বাহিনীর সংঘর্ষ চলছে। বিদ্রোহী ক্রমশ গৃহযুদ্ধের আকার নিচ্ছে। প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষ দেশ ছেড়ে পালাচ্ছে।

জাতিসঙ্ঘের শরণার্থী বিষয়ক সংস্থা ‘ইউনাইটেড নেশনস হাই কমিশনার ফররিফিউজিস’ (ইউএনএইচসিআর) গতকাল, মঙ্গলবার জানায়, ‘হর্ন অব আফ্রিকা’ বলে খ্যাত ইথিওপিয়ার সাম্প্রতিক রাজনৈতিক পরিস্থিতি ক্রমশ মানবিক সঙ্কটের চেহারা নিচ্ছে। আর এতে সরাসরি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা প্রধান যোগ রয়েছ বলে অভিযোগ। কারণ আধানম নিজে তাইগ্রে সম্প্রদায়ের মানুষ। তাই ইথিওপিয়ার সেনাবাহিনীর সঙ্গে যুদ্ধে লিপ্ত তাইগ্রে পিপলস লিবারেশন ফ্রন্ট (TPLF) -এর সদস্যদের অস্ত্র দিয়ে সাহায্য করেছেন বলে অভিযোগ।

Advertisement

বৃহস্পতিবার এপ্রসঙ্গে ইথিওপিয়ার সেনাপ্রধান জেনারেল বিরহানু জুলা জানান, ‘বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান তাইগ্রে (Tigray) সম্প্রদায়ের মানুষ। তাই নিজের ক্ষমতার অপব্যবহার করে ইথিওপিয়ার সেনার বিরুদ্ধে যুদ্ধরত বিদ্রোহীদের মদত দিচ্ছেন। তিনি একজন অপরাধী।’ যদিও এই অভিযোগের কোনো প্রমাণ এখনও মেলেনি।

এদিকে তাঁর বিরুদ্ধে ওঠা এই অভিযোগ সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন বলে দাবি করেছেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (WHO)’র প্রধান। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় এপ্রসঙ্গে টেডরোজ আধানম ঘেব্রিয়েসুস (Tedros Adhanom Ghebreyesus) টুইট করেন, ‘আমি ইথিওপিয়ার সেনাবাহিনীর সঙ্গে যুদ্ধে তাইগ্রে পিপলস লিবারেশন ফ্রন্টকে মদত দিচ্ছি বলে যে অভিযোগ উঠেছে তা পুরোপুরি ভিত্তিহীন। আমি আগাগোড়া একটা পক্ষেই আছি, তা হল শান্তি। এর জন্য তাইগ্রে বিদ্রোহীদেরও আমি শান্তিপূর্ণভাবে আন্দোলনের পরামর্শ দিয়েছি।’

Leave a Reply