আত্মনির্ভরতার পথে ধীরপায়ে এগোচ্ছে ভারত, বুলেট ট্রেন প্রকল্পে ৭২ শতাংশ বরাত পেলো দেশীয় সংস্থাগুলি

0
113

#বুলেট-ট্রেন-প্রকল্প: আত্মনির্ভরতার পথে ধীরপায়ে এগোচ্ছে ভারত, ১ লক্ষ ১০ হাজার কোটি টাকা মূল্যের বুলেট ট্রেন প্রকল্পে ৭২ শতাংশ বরাত পেলো একাধিক দেশীয় সংস্থা। দেশীয় সংস্থাগুলিই যন্ত্রপাতি, লাইন পাতা, সেতু তৈরি, এমনকী জলের নিচে টানেল তৈরি সহ একাধিক কাজ করবে। রেল বোর্ডের চেয়ারম্যান ভি কে যাদব জানিয়েছেন যে নরেন্দ্র মোদীর স্বপ্নের এই প্রকল্পে শুধুমাত্র প্রযুক্তিগত সহায়তা, সিগন্যালিং, টেলিকম এবং রোলিংয়ের কাজ করবে জাপানি সংস্থাগুলি।

গতকাল একটি ওয়েবিনারে ভি কে যাদব বলেছেন, “জাপান সরকারের সঙ্গে বিস্তারিত আলোচনার পর আমরা ৭২ শতাংশ কাজের বরাত ভারতীয় সংস্থাগুলিকে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। ভারতীয় সংস্থাগুলিই সমস্ত কারিগরি কাজ করবে। যেমন ব্রিজ তৈরি, জলের তলায় টানেল তৈরি। আর জাপানিদের দেওয়া হবে শুধু সিগন্যালিং এবং টেলিকমের কাজ।”

রেল বোর্ডের চেয়ারম্যানের বক্তব্য, ‘আত্মনির্ভর’ ভারতের দিকে এগোনোর এটি একটি বড় পদক্ষেপ। তিনি এও জানিয়েছেন যে রেল এমনভাবে প্রযুক্তিগত পরিকাঠামো তৈরি করবে যাতে ২০৫০ পর্যন্ত প্রয়োজনীয় সমস্ত কাজ এখান থেকেই সুসম্পন্ন করা সম্ভবপর হয়।

Advertisement

প্রসঙ্গত, মুম্বই থেকে আহমেদাবাদের মধ্যেকার ৫০৮ কিলোমিটার লম্বা এই বুলেট ট্রেন প্রকল্পের কাজ জাপান থেকে ৮০ শতাংশ ঋণ নিয়ে হওয়ার কথা। শুধু তাই নয়, সম্পূর্ণ জাপানি প্রযুক্তিতেই এই প্রকল্পটি সম্পন্নও হওয়ার কথা। কিন্তু জানা যাচ্ছে, সম্প্রতি বেশ কিছু জাপানি সংস্থা ভারতের বুলেট ট্রেন প্রকল্পে আগ্রহ হারাচ্ছে।

সম্প্রতি এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের দাবি করেছে, এই প্রকল্পে মাটির তলা দিয়ে যে ২১ কিলোমিটার লম্বা লাইন হওয়ার কথা, তা তৈরির ক্ষেত্রে জাপানি সংস্থাগুলি মোটেও আগ্রহ দেখাচ্ছে না। এমনকি এও শোনা যাচ্ছে যে এই প্রকল্প নাকি ৫ বছর অর্থাৎ ২০২৮ পর্যন্ত পিছিয়ে যেতে পারে। সেক্ষেত্রে, এমতাবস্থায় দেশীয় সংস্থাগুলিকেই বেশি প্রাধান্য দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে রেল কতৃপক্ষ।

Leave a Reply